x-video.center fuck from above. azure storm masturbating on give me pink gonzo style. motphim.cc sexvideos

ভারত বনাম পাকিস্তান : সামরিক সক্ষমতায় শক্তিশালী কে?

0

‘সাপে-নেউলে’ শব্দ যুগলের সমার্থক শব্দ হয়ত ভারত-পাকিস্তান ই মানায়। উপমহাদেশ থেকে ব্রিটিশ বিদায়ের সময় ধর্মের ভিত্তি সৃষ্টি হওয়া রাষ্ট্র দুটির মধ্যে সম্পর্ক আজও খারাপ। চরম শত্রুভাবাপন্ন দেশ দুটি সব সময় একে অপরের বিপক্ষে লড়াই করছে। কখনো সেটা রাষ্ট্রীয় নেতাদের মুখের ভাষায়, কখনো আবার সীমান্তে দুই দেশের সেনাদের মধ্যে। ভারত-পাকিস্তান সৃষ্টির পর থেকে এখন পর্যন্ত মোট তিনবার যুদ্ধে জড়িয়েছে দেশ দুইটি। ১৯৪৮ সালে, ১৯৬৫ সালে,  এবং ১৯৯৯ সালে ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধে দুই পক্ষের ই বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এখনও প্রতিনিয়ত সীমান্তে লড়াই চলছেই, সীমান্তে একে অপরের সেনা হত্যা করার কারণে বেশ কয়েক বার যুদ্ধ বেঁধে যাওয়ার পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছিল সাম্প্রতিক সময়ে। দক্ষিণ এশিয়ার পরমাণু শক্তিধর রাষ্ট্র দুইটির মধ্যে যদি আবার যুদ্ধ লেগে যায় তাহলে কোন পক্ষ এগিয়ে থাকবে সেটা নিয়ে উপমহাদেশসহ বিশ্বের অনেক দেশের সাধারণ মানুষের কৌতূহলের শেষ নেই। একটি যুদ্ধে বিভিন্ন বিষয় প্রভাব বিস্তার করে, তবে আধুনিক যুগের যুদ্ধে আধুনিক অস্ত্রের কোন বিকল্প নেই। যে দেশের অস্ত্রভান্ডার যত বেশী উন্নত এবং যতবেশী সমৃদ্ধ সেই দেশটি যুদ্ধের ময়দানে এগিয়ে থাকবে। যদি ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ লেগেই যায় তাহলে কে জিতবে সেটা সময়ই বলে দিবে, তার আগে দুই দেশের সামরিক সক্ষমতার তুলনামূলক চিত্র জেনে নেওয়া যাক।

প্রতিবছর বিভিন্ন দেশের অফিসিয়াল তথ্যসমূহ, উইকিপিডিয়া, সিআইএ রিপোর্ট সহ বিভিন্ন গোয়েন্দা তথ্য সমূহ হতে গ্লোবাল ফায়ার পাওয়ার ডটকম বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সামরিক সক্ষমতার একটি রিপোর্ট তৈরি করে। গ্লোবাল ফায়ার পাওয়ার ডটকমের ২০১৮সালের রিপোর্ট অনুসারে অনুসারে ভারত ও পাকিস্তানের সামরিক সক্ষমতা তুলে ধরা হলো।

সামরিক শক্তিতে গ্লোবাল অবস্থান

ভারত:

বিশাল সৈন্যবহর এবং সমৃদ্ধ অস্ত্র সম্ভারের কারণে জিএফপি’র গ্লোবাল সূচকে ভারত ১৩৬টি দেশের মধ্যে  চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে।

পাকিস্তান:

পাকিস্তান সেনাবাহিনীও একটি আধুনিক এবং শক্তিশালী বাহিনী। জিএফপি’ ২০১৮ সালের রিপোর্টে ১৩৬ টি দেশের মধ্যে পাকিস্তানের অবস্থানের ১৭তম। তবে অন্যান্য সামরিক সূচক রিপোর্ট গুলোতে পাকিস্তানের অবস্থান ১২-১৩ এর মধ্যে।

জনশক্তি

একটি দেশের জনশক্তি বড় একটি সম্পদ। যদি কোন দেশের জনশক্তি কম থাকে সে সকল দেশে দেখা যায় চাহিদা অনুসারে সৈন্য সংখ্যা বাড়াতে পারেনা। জনশক্তি সামরিক শক্তিতেও প্রভাব বিস্তার করে।

ভারতীয় সেনাবাহিনী;
ভারতীয় সেনাবাহিনী; Source: postcardkannada.com

ভারত:

ভারত বিশ্বের দ্বিতীয় জনবহুল দেশ। গ্লোবাল ফায়ার পাওয়ার (জিএফপি) রিপোর্ট অনুসারে বর্তমানে ভারতে মোট জনসংখ্যা ১২৮ কোটি ১৯ লাখ ৩৫ হাজার ৯১১ জন। মোট জনসংখ্যার মধ্যে কর্মক্ষম বা জনশক্তি রয়েছে ৬১ কোটি ৬০ লাখ। সার্ভিস দেওয়ার জন্য উপযুক্ত রয়েছেন ৪৮ কোটি ৯৬ লাখ। ভারতে প্রতি বছর সামরিক বাহিনীতে কাজ করা জন্য উপযুক্ত হোন  ৪কোটি ২০ লাখ ৭ হাজার ২৫০ জন। বর্তমানে ভারতে সক্রিয় সেনা রয়েছে ১৩লাখ ৬২ হাজার ৫০০ জন। রিজার্ভ সৈন্য সংখ্যা ২৮লাখ ৪৪হাজার ৭৫০ জন।

পাকিস্তানী সেনাবাহিনী
পাকিস্তানী সেনাবাহিনী Source: financialexpress.com

পাকিস্তান :

পাকিস্তানে বর্তমানে মোট জনসংখ্যা ২০কোটি ৪৯লাখ ২৪হাজার ৮৬১ জন। এর মধ্যে জনশক্তি রয়েছে সাড়ে নয় কোটি। বর্তমানে সামরিক বাহিনীতে সেবা দেওয়ার জন্য উপযুক্ত জনসংখ্যা রয়েছে ৭কোটি ৫৩লাখ ২৫হাজার। পাকিস্তানে প্রতিবছর সামরিক বাহিনী কাজ জন্য উপযুক্ত হোন ৪৩লাখ ৪৫ হাজার। বর্তমানে পাকিস্তানের সামরিক বাহিনী সক্রিয় সেনাসদস্য রয়েছে ৯ লাখ ১৯ হাজার। রিজার্ভে আছে ২লাখ ৮২ হাজার জন প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সেনা।

সামরিক সক্ষমতার তুলনা;
সামরিক সক্ষমতার তুলনা; Source: ibtimes.co.in

আকাশে লড়াইয়ের শক্তি

বর্তমানে যুদ্ধ স্থলপথে হয়না বললেই চলে, যে দেশের শক্তিশালী বিমান বাহিনী রয়েছে তারা হাজার কিলোমিটার দূর থেকে এসে হামলা চালিয়ে চলে যায়। ভারত ও পাকিস্তানের বিমান বাহিনীর শক্তিমত্তা সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক। এখানে জিএফপি দুই দেশের যে আকাশে যুদ্ধের সক্ষমতা তুলে ধরেছে সেখানে স্থল, নৌ এবং বিমান বাহিনীর সবগুলো এয়ারক্রাফট একত্রে তুলে ধরেছে। এর মধ্যে স্থায়ী পাখা যুক্ত যুদ্ধবিমান এবং ঘুর্ণায়মান পাখা যুক্ত অ্যাটাক হেলিকপ্টারের সংখ্যাও ধরা হয়েছে।

ভারতের জাগুয়ার এয়ারক্রাফট
ভারতের জাগুয়ার এয়ারক্রাফট ; Source: ibtimes.co.in

ভারত:

ভারতের মোট এয়ারক্রাফট রয়েছে ২১৮৫টি, এর মধ্যে ফাইটার এয়ারক্রাফট রয়েছে ৫৯০টি, অ্যাটাক এয়ারক্রাফট রয়েছে ৮০৪ টি, পরিবহন এয়ারক্রাফট রয়েছে ৭০৮টি, প্রশিক্ষণ বিমান রয়েছে ২৫১টি, মোট হেলিকপ্টার রয়েছে ৭২০টি এর মধ্যে অ্যাটাক হেলিকপ্টার রয়েছে ১৫টি।

পাকিস্তানের বিমান;
পাকিস্তানের বিমান; Source: pakistantoday.com.pk

পাকিস্তান:

পাকিস্তানের মোট এয়ারক্রাফট রয়েছে ১২৮১টি, এর মধ্যে ফাইটার এয়ারক্রাফট ৩২০টি, অ্যাটাক এয়ারক্রাফট ৪১০টি, পরিবহন বিমান ২৯৬টি, প্রশিক্ষণ বিমান রয়েছে ৪৮৬টি। মোট হেলিকপ্টার রয়েছে ৩২৮টি যার মধ্যে অ্যাটাক হেলিকপ্টার রয়েছে ৪৮টি।

নৌ-শক্তি

নৌ-শক্তি মূলত এয়ারক্রাফট ক্যারিয়ার, ফ্রিগেট, সাবমেরিন, ক্রুইজার, ডেস্ট্রয়ার, যুদ্ধ জাহাজ ইত্যাদি বিষয়ের উপর নির্ভর করে। ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে নৌ-শক্তিতে কে এগিয়ে দেখা যাক।

ভারতের এয়ারক্রাফট ক্যারিয়ার;
ভারতের এয়ারক্রাফট ক্যারিয়ার;
Source: wefornews.com

ভারত:

ভারতের নৌ-বাহিনীর মোট ২৯৫টি বিভিন্ন ধরণের মোট সামরিক নৌযান রয়েছে। এরমধ্যে এয়ারক্রাফট ক্যারিয়ার রয়েছে ১টি, ফ্রিগেট ১৪টি, ডেস্ট্রয়ার ১১টি, করবেটস ২২টি, সাবমেরিন ১৬টি, পেট্রোল ক্রাফট ১৩৯টি, মাইন ওয়ারফেয়ার ভেসেল ৪টি।

পাকিস্তানের নৌবহর;
পাকিস্তানের নৌবহর; Source: pakistantoday.com.pk

পাকিস্তান:

পাকিস্তানের মোট সামরিক নৌযান রয়েছে ১৯৭টি। এর মধ্যে কোন এয়ারক্রাফট ক্যারিয়ার, ডেস্ট্রয়ার, করবেটস নেই। ফ্রিগেট রয়েছে ১০টি, সাবমেরিন রয়েছে ৫টি, পেট্রোল ক্রাফট ১১টি, মাইন ওয়ারফেয়ার ভেসেল রয়েছে ৩টি।

স্থল শক্তি

স্থল শক্তি বিবেচনা করা হয় মূলত ভারী যুদ্ধ ট্যাংক, হালকা ওজনের মাঝারি ও ছোট ট্যাংক, ট্যাংক ডেস্ট্রয়ার, আর্মোড ফাইটিং ভেহিকেল (এএফভি), আর্মোড পার্সোনেল বা সেনা ক্যারিয়ার (এপিসি) সহ আরও কিছু অস্ত্রের উপর নির্ভর করে।

ভারতীয় বাহিনীর ট্যাংক
ভারতীয় বাহিনীর ট্যাংক ; Source: tanks-encyclopedia.com

ভারত:

ভারতের কমব্যাট ট্যাংক রয়েছে ৪৪২৬টি, আর্মোড ফাইটিং ভেহিকের রয়েছে ৩১৪৭টি, সেল্ফ প্রোপেলড আর্টিলারি রয়েছে ১৯০টি, টানা কামান রয়েছে ৪১৫৮টি, রকেট প্রজেক্টর রয়েছে ২৬৬টি।

পাকিস্তানি বাহিনীর ট্যাংক
পাকিস্তানি বাহিনীর ট্যাংক; Source: propakistani.pk

পাকিস্তান:

পাকিস্তানে কমব্যাট ট্যাংক রয়েছে সর্বমোট ২১৮২টি, আর্মোড ফাইটিং ভেহিকেল রয়েছে ২৬০৪টি, সেল্ফ প্রোপেলড আর্টিলারি বা কামান রয়েছে ৩০৭টি, টোড আর্টিলারি বা টানা কামান রয়েছে ১২৪০টি এবং রকেট প্রজেক্টর রয়েছে ১৪৪টি।

প্রাকৃতিক সম্পদ (পেট্রোলিয়াম)

যেকোন যুদ্ধে তেল একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রভাবক কারণ যুদ্ধে যে সকল অস্ত্র ব্যবহার করা হয় তার প্রতিটি সচল রাখার জন্য জ্বালানী তেলের প্রয়োজন। জিএফপি তাদের রিপোর্ট তৈরিতে তেলকে প্রাথমিক ফ্যাক্টর হিসেবে বিবেচনা করেছে। তারা এই ক্ষেত্রে প্রতিটি দেশের প্রতিদিনের তেল উৎপাদন, প্রতিদিনের খরচ এবং সঞ্চিত তেলের বিষয়টি বিবেচনায় রেখে রিপোর্ট করেছে।

ভারত :

ভারত প্রতিদিন ৭লাখ ৩৪ হাজার ৫০০ ব্যারেল তেল উৎপাদন করে থাকে। ভারতে দৈনিক তেলের চাহিদা বা খরচ হয় ৩৫লাখ ১০ হাজার ব্যারেল। সে কারণে ভারতকে বাইরের দেশ গুলো থেকে প্রতি বছর প্রচুর পরিমাণ তেল আমদানি করতে হয়। ভারতের নিজস্ব তেলের খনি গুলোতে সঞ্চিত তেলের পরিমাণ ৪৬২কোটি ১০লাখ ব্যারেল।

পাকিস্তান :

অন্যদিকে পাকিস্তান প্রতিদিন তেলের খনি থেকে তেল উৎপাদন করে ৮৫ হাজার ৫০০ ব্যারেল। আর পাকিস্তানে দৈনিক তেলের চাহিদা বা খরচ হয়ে থাকে ৪লাখ ৪০ হাজার ব্যারেল। পাকিস্তানের তেলকূপগুলোতে এখনো সঞ্চিত থাকা তেলের পরিমাণ ৩৫ কোটি ৬ লাখ ব্যারেল।

লজিস্টিক শক্তি

একটি যুদ্ধ অনেক বিষয়ের উপর নির্ভর করে, তার মধ্যে লজিস্টিক সাপোর্ট বা লজিস্টিক শক্তিও রয়েছে। লজিস্টিক শক্তি বলতে মানুষ এবং যন্ত্রপাতি স্থানাস্তরের সক্ষমতা,বাণিজ্য শক্তি, শ্রম শক্তি, সাধারণ পরিবহন সক্ষমতা ইত্যাদি।

ভারত :

ভারতে বর্তমানে মোট শ্রমশক্তি রয়েছে ৫২কোটি১৯লাখ জন , বাণিজ্য জাহাজ রয়েছে ১৬৭৪টি, প্রধান বন্দর রয়েছে ৭টি, মোট সড়কপথ রয়েছে ৩৩ লাখ ২০ হাজার ৪১০ কিলোমিটার, রেলপথ রয়েছে ৬৩ হাজার ৯৭৪ কিলোমিটার, সেবা দেওয়ার মতো উপযুক্ত বিমানবন্দর ৩৪৬টি।

পাকিস্তান:

পাকিস্তানে বর্তমানে মোট শ্রমশক্তি রয়েছে ৬কোটি ৩৮লাখ ৯০হাজার জন, বাণিজ্য জাহাজ ৫২টি, প্রধান বন্দর ২টি, মোট সড়কপথ ২ লাখ ৬০ হাজার ৭৬০ কিলোমিটার, রেলপথ রয়েছে ৭৭৯১ কিলোমিটার এবং যুদ্ধকালীন সেবা দেওয়ার উপযোগী বিমানবন্দর রয়েছে ১৫১টি।

অর্থনীতি

কোন দেশের অর্থনীতি যদি মজবুত না হয় তবে সে দেশ যুদ্ধ করে বেশীদিন টিকে থাকতে পারবে না। একটি দেশ যখন যুদ্ধে জড়ায় তখন তার প্রচুর পরিমাণ অর্থ ব্যয় হয়ে যায়। তাই কোন দেশ শুধু অস্ত্র ভান্ডার সমৃদ্ধ হলেই চলবে না, অস্ত্রের পাশাপাশি শক্তিশালী অর্থনীতিও চাই কারণ কোন যুদ্ধ শুরু হলে কখন শেষ সেটা কেউ জানে না। যদি কোন দেশের অর্থনীতি খারাপ হয়,তবু তারা যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ে তাহলে যুদ্ধ পরবর্তী সময়ে একটি খারাপ পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে। ভারত পাকিস্তানের অর্থনীতির দিকটিও দেখা যাক।

ভারত:

ভারতের সামরিক বাজেট ৪৭ বিলিয়ন ডলার। ভারতের বর্তমানে বৈদেশিক ঋণ রয়েছে ৪৮৩ বিলিয়ন ডলার, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ রয়েছে ৪০৭ বিলিয়ন ২০ কোটি ডলার এবং পার্চেজিং পাওয়ার প্যারিটি (পিপিপি) রয়েছে ৯৪৪৭ বিলিয়ন ডলার।

পাকিস্তানি ও ভারতীয় রুপি
পাকিস্তানি ও ভারতীয় রুপি Source: dreamstime.com

পাকিস্তান :

পাকিস্তানের সামরিক বাজেট ৭ বিলিয়ন ডলার, বৈদেশিক ঋণ রয়েছে ৭৫বিলিয়ন ৬৬ কোটি ডলার, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ রয়েছে ২০ বিলিয়ন ২ কোটি ডলার এবং পার্চেজিং পাওয়ার প্যারিটি রয়েছে ১০৫৬ বিলিয়ন ডলার।

ভৌগলিক দিক

যুদ্ধে ভৌগলিক অবস্থান খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। অনেক সময় যুদ্ধের মোড় ঘুরিয়ে দেয় কোন দেশের ভৌগলিক অবস্থান। কোন দেশের আয়তন, সমুদ্রসীমা, দুই দেশের বর্ডার, জলপথ ইত্যাদি যুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

ভারত:

ভারতের মোট আয়তন ৩২লাখ৮৭হাজার ২৬৫ বর্গ কিলোমিটার। মোট সমুদ্র সীমা ৭০০০ কিলোমিটার, বিভিন্ন দেশের সাথে ভারতের মোট সীমানা রয়েছে ১৩৮৮৮ কিলোমিটার এবং ভারতের মোট নৌ-পথ রয়েছে ১৪৫০০ কিলোমিটার।

পাকিস্তান:

পাকিস্তানের মোট আয়তন ৭ লাখ ৯৬ হাজার ৯৫ বর্গ কিলোমিটার। পাকিস্তানের মোট সমুদ্র সীমা রয়েছে ১০৪৬ কিলোমিটা, বিভিন্ন দেশের সাথে সীমান্ত রয়েছে ৭২৫৭ এবং মোট নৌ-পথ রয়েছে ২৫ হাজার ২২০ কিলোমিটার।

পারমাণবিক শক্তি

সবশেষে আসা যাক সবচেয়ে শক্তিশালী এবং ধ্বংসলীলা সৃষ্টিকারী পারমাণবিক শক্তির বিষয়ে। যে দেশের পারমাণবিক শক্তি বেশী সে দেশকে অন্য দেশ বেশী সমীহ করে চলে। সব অস্ত্রকে ফিকে করে দেয় এই পারমাণবিক বোমা।

ভারত:

পারমাণবিক বোমার বিষয়ে ভারত ও পাকিস্তান কোন পক্ষই সুনির্দিষ্ট তথ্য প্রকাশ করেনি, তবে বিভিন্ন তথ্য আলামত থেকে ধারণা করা হয় ভারতের কাছে ১০০-১১০ টি পারমাণবিক বোমা রয়েছে।

পাকিস্তান :

পাকিস্তান তাদের পরমাণু কার্যক্রম নিয়ে সুস্পষ্ট কিছু না জানালোও বিভিন্ন তথ্য থেকে ধারণা করা হয় পাকিস্তানের কাছে ১৩০-১৪০টি পারমাণবিক বোমা রয়েছে, তবে প্রকৃত সংখ্যা আরও অনেক বেশী হবে বলে ধারণা করা হয়।

সবশেষে, বিশ্বব্যাপী যুদ্ধের যে ভয়াবহতা চলছে, লাখ লাখ মানুষ মারা যাচ্ছে। শরণার্থী হিসেবে লাখ লাখ মানুষ আশ্রয় নিতে হচ্ছে। আমাদের লেখাটি শুধুমাত্র সাধারণ মানুষের কৌতূহল নিবারণের জন্য, কোন যুদ্ধকে সমর্থন বা উস্কানি দেওয়া উদ্দেশ্য নয়। আমরাও এমন একটি বিশ্ব চাই যেখানে কোন যুদ্ধ, সন্ত্রাস, ক্ষুধা, দারিদ্র এবং বৈষম্য থাকবে না। আসুন আমরা সবাই সে রকম পৃথিবী গড়ার চেষ্টা করি।

আরও পড়তে পারেন –

ভারত বনাম চীন – সামরিক শক্তিতে এগিয়ে আছে কোন দেশ?

Source Featured Image Source 1 Source 2
Via Source 3
Leave A Reply

Your email address will not be published.

sex videos ko ko fucks her lover. girlfriends blonde and brunette share sex toys. desi porn porn videos hot brutal vaginal fisting.